দিনাজপুরে হত্যা মামলায় একজনের আমৃত্যু কারাদন্ড

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৭, ২০২২, ১০:৫৮ রাত
আপডেট: নভেম্বর ২৮, ২০২২, ০৫:০৩ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ-২ আদালতের বিচারক শ্যাম সুন্দর রায় দিনাজপুরের কাহারোলে একটি হত্যা মামলায় রুহুল আমিনকে দোষী সাব্যস্ত করে তাকে আমৃত্যু কারাদন্ডে দন্ডিত এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন। দন্ডিত রুহুল আমিনকে দিনাজপুর জেলা কারাগারে পাঠান হয়েছে।

দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ-২ আদালতের এপিপি মোস্তাফিজুর রহমান টুটুল জানান, এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি দিনাজপুর জেলার কাহারোল উপজেলার কাহারোল বাজারে ২০১০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঘটে। ওই দিন সন্ধ্যায় কাহারোল বাজারে জেলার কাহারোল উপজেলার শহিদুল ইসলাম (৫০) তার দাদনের জন্য লাগানো ২ লাখ টাকা একই উপজেলার রসুলপুর গ্রামের ইলিয়াস আলীর পুত্র রুহুল আমিনের (৪০) কাছে দাবি করেন।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে রুহুল আমিন তার হাতে থাকা ছোরা দিয়ে শহিদুল ইসলামকে আঘাত করলে শহিদুল ইসলাম মটিতে পড়ে যায়। ঘটনা বেগতিক দেখে রুহুল আমিন পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত শহিদুল ইসলামকে ২০১০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৭টায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে দ্রুত দিনাজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির আধা ঘন্টা পর শহিদুল রাত ৮টায় মারা যায়। এই ঘটনায় নিহত শহিদুলের পুত্র সাহাদত হোসেন বাদি হয়ে ঘটনার পরদিন রুহুল আমিনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

পুলিশ আসামি রুহুল আমিনকে গ্রেফতার করলে সে হত্যা ঘটনার দায় স্বীকার করে বিচারকের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। বিচারক বাদি পক্ষের ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করে আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে উক্ত রায় ঘোষণা করেন। মামলাটি বাদি পক্ষে এপিপি কাজেম উদ্দীন আহম্মেদ এবং আসামি পক্ষে এডভোকেট মোহাম্মদ ইছাহক পরিচালনা করেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়