ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর ধর্ষণ মামলা

প্রকাশিত: জানুয়ারী ২১, ২০২৩, ০৬:৪১ বিকাল
আপডেট: জানুয়ারী ২১, ২০২৩, ০৬:৪১ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় রাসেল বাদশা (২০) নামের এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী। শনিবার সকালে কিশোরীর মা বাদী তালা থানায় মামলাটি করেন। অভিযুক্ত রাসেল উপজেলার মাগুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও মাগুরাডাঙ্গা গ্রামের ইউপি সদস্য মইনুল ইসলামের ছেলে।

অনশনরত ওই কিশোরীর দাবি, এক বছর আগে রাসেল বাদশার সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাকে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক মেলামেশা করেছেন রাসেল। বর্তমানে মেয়েটি দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

কিশোরী জানায়, বিয়েতে রাজি না হওয়ায় শুক্রবার রাসেলের বাড়িতে অনশন শুরু করে সে। তবে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান রাসেল। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে তার মা বাদী হয়ে থানায় রাসেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। ঘটনার পর থেকে পলাতক থাকায় অভিযুক্ত রাসেলের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তার পরিবারের সদস্যরাও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চৌধুরী রেজাউল করিম বলেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত রাসেলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তালা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিলন কুমার রায় বলেন, অভিযুক্ত রাসেলের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়