ভোলাহাটে ১৫২ কেজি ওজনের দুটি কালো পাথরের মূর্তি উদ্ধার

প্রকাশিত: জানুয়ারী ২৩, ২০২৩, ১১:২৪ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ২৩, ২০২৩, ১১:২৪ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলা থেকে দুটি কালো পাথরের মূর্তি উদ্ধার হয়েছে। আজ সোমবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে গ্রাম পুলিশ নিয়ে দলদলি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের পুরাতন বারইপাড়া গ্রাম থেকে মূর্তি দু’টি প্রথমে উদ্ধার করেন ইউপি মেম্বার মো. বাবু।

পরে খবর পেয়ে ভোলাহাট থানা পুলিশ ও ৫৯’বিজিবি’র জেকে পোলাডাঙ্গা বিওপি’র সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন। এরপর মূর্তি দু’টি ইউপি কার্যালয়ে নেয়া হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো কষ্টি পাথরের। বড় মূর্তিটির ওজন ৮২ কেজি ৪০০ গ্রাম ও ছোট মূর্তিটির ওজন ৬৯ কেজি ৫০০ গ্রাম। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে তাবাসসুম ও ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক চুটু উপস্থিত হয়ে মূর্তিগুলো উপজেলা প্রশাসনের হেফাজতে নিয়ে উপজেলা পরিষদ নিয়ে যান।

জেলা প্রশাসনের নির্দেশনায় সেখান থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে মূর্তিগুলো ট্রেজারিতে (সরকারি কোষাগার) জমা দেয়ার জন্য পাহারা দিয়ে ভোলাহাট থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পাঠানো হয়। ৫৯’বিজিবি’র অধিনায়ক লে.কর্নেল আমীর হোসেন মোল্লা বলেন, উপজেলা প্রশাসন, বিজিবি, পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে গঠিত টাস্কফোর্স কষ্টি পাথরের মূর্তিগুলো উদ্ধার করেছে। বড় মূর্তিটি পার্বতী (দুর্গা) ও অপরটি  সাধারণ।

ইউপি সদস্য বাবু বলেন, সকালের দিকে পুরাতন বারইপাড়া গ্রামের শুকুর আলীর জমিতে ডিপ টিউবওয়েলের জন্য ড্রেন খুঁড়তে গিয়ে এলাকার শ্রমিক রুবেল, রবিউল, জাহাঙ্গীর, কাইয়ুম প্রথম মূর্তিগুলোর সন্ধান পান। ইউপি চেয়ারম্যান মোজম্মেল হক বলেন, মূর্তিগুলোর ব্যাপারে জেলা প্রশাসন পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবে। এগুলো প্রত্নতত্ব বিভাগের নিকট হস্তান্তর করা হতে পারে।

ভোলাহাট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রেজোয়ান আলী মন্ডল বলেন, মাটির ৩ ফুট গভীরে প্রায় অক্ষত মূর্তিগুলোর সন্ধান পাবার পর শ্রমিকরা সেগুলো খুঁড়ে বের করেন। মাটি লেগে থাকা অবস্থাতেই এগুলো উদ্ধার করে ট্রেজারিতে পাঠানো হয়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়