সারিয়াকান্দিতে নিখোঁজ সেই বাক প্রতিবন্ধীর হাত বাঁধা ছবি ফেসবুকে

প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২৩, ০৯:০০ রাত
আপডেট: মে ২৭, ২০২৩, ০১:১৪ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়া সারিয়াকান্দিতে নিখোঁজ সেই বাক প্রতিবন্ধীর হাত বাঁধা ছবি প্রকাশ করা হয়েছে স্থানীয় যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। এ বিষয়ে গত ২১ মে দৈনিক করতোয়ার অনলাইনে " সারিয়াকান্দিতে বাক প্রতিবন্ধী যুবক নিখোঁজ" শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

ওই প্রতিবন্ধী ব্যক্তি উপজেলার নারচী ইউনিয়নের নারচী বিলপাড়া গ্রামের মৃত আদম আলী ফকিরের ছেলে নিলু মিয়া (৪২)। গত ১৮ মে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টার দিকে নিলু তার প্রয়োজনীয় কাজে নারচী বাজারে যায়। সেখান থেকে আর সে বাড়িতে ফিরে আসেনি। এরপর নিলুর আত্মীয় স্বজনদের বাড়ি খোঁজ নিয়ে  কোথাও তাকে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

এ বিষয়ে নিলুর বড়ভাই রুবেল আহম্মেদ গত ২০ মে সারিয়াকান্দি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।  বৃহস্পতিবার থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিলুর দুই হাত বাঁধা একটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে হাতবাঁধা অবস্থায় নিলু মাটিতে পরে আছে। তার চারপাশে কয়েকজন লুঙ্গী পরা লোকজন দাঁড়িয়ে আছেন। যাদের শুধু পা পর্যন্ত ছবি তোলা হয়েছে।

ছবির বিষয়ে মুঠোফোনে নিলুর বড়ভাই রুবেল আহম্মেদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার স্ত্রী ফাহিমা খাতুন ফোন রিসিভ করেন। তিনি জানান, তার স্বামী রুবেল আহম্মেদ এর বন্ধু সৌদি প্রবাসী মিন্টু খানের নিকট থেকে তারা নিলুর ছবিটি সংগ্রহ করেছেন। তবে এ বিষয়ে মিন্টু খানের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।


পরে রুবেল আহম্মেদ আবারো ফোন ব্যাক করলে তিনি জানান, তিনি তার বন্ধু মিন্টু খানের নিকট থেকে শুনেছেন তিনি ছবিটি তার সৌদি প্রবাসী পেয়ারা খাতুন নামে একজন বান্ধবীর নিকট থেকে পেয়েছেন। মিন্টু খানের সেই বান্ধবী পেয়ারা খাতুনের বাড়ি নিখোঁজ বাক প্রতিবন্ধী নিলু মিয়ার বাড়ির পাশে।

এ বিষয়ে নিলুর স্ত্রী রাহেনা বেগম বলেন, ফেসবুকে যারা আমার স্বামীর হাত পা বাঁধা ছবি প্রকাশ করেছে তাদের কাছে আমার স্বামীকে আমি ফেরত চাই।

কথা হয় সারিয়াকান্দি ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজেশ কুমার চক্রবর্তীর সাথে। তিনি বলেন, নিখোঁজ বাক প্রতিবন্ধী নিলু মিয়াকে খুঁজতে আমাদের পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। ছবিটির বিষয়েও তদন্ত অব্যাহত আছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়