গোয়ালন্দ ঘাটের কামাল শেখ

জীবন চলে তার ছাই থেকে সোনা বের করেই 

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ০২, ২০২২, ০৭:৫৫ বিকাল
আপডেট: সেপ্টেম্বর ০৩, ২০২২, ১২:৩৭ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

বেড়া (পাবনা) প্রতিনিধি: রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ ঘাট এলাকার কামাল শেখ দুই দশক ধরে বিভিন্ন জেলার সোনাপট্টির ছাই থেকে সোনা খুঁজে বে’র করেই জীবন চালিয়ে আসছেন। বিচিত্র এ পেশায় নিজেকে যুক্ত করে সোনা খোঁজার জন্য পাবনা, সিরাজগঞ্জ, কুড়িগ্রামসহ বিভিন্ন জেলায় ঘুরে বেড়ান তিনি।

বেড়া বাজারের স্বর্ণালংকার ব্যবসায়ীরা জানান, সোনার দোকানগুলোকে কেন্দ্র করে দুই ধরনের ময়লা সংগ্রহকারী রয়েছেন। তার মধ্যে মূল ময়লা সংগ্রহকারীরা প্রতিটি স্বর্ণালংকারের দোকানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ। তাঁদের আর্থিক অবস্থাও বেশ ভালো। দোকানগুলোতে কাজের পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে বছরে ৫০ হাজার থেকে পাঁচ লাখ টাকায় তাঁরা স্বর্ণালংকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। এসব ময়লা সংগ্রহকারীরা দোকানের যাবতীয় ময়লা, এসিড পানি, ছাই প্রভৃতি সংগ্রহ করে নিয়ে যান। এগুলো থেকে তাঁদের ভালোই আয় হয়ে থাকে।   কামাল শেখ জানান, একসময় রিকশা চালিয়ে পরিবারের ভরণপোষণের দায়িত্ব পালন করতেন। ২০ বছরের বেশি সময় ধরে তিনি এ পেশায় যুক্ত। বাড়িতে স্ত্রী, একমাত্র ছেলে, মা-বাবা ও বোনকে নিয়ে তাঁর সংসার।

বেড়া বাজার স্বর্ণালংকার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গৌর চন্দ্র কর্মকার বলেন, 'টাকা-পয়সার বিনিময়ে স্বর্ণালংকারের দোকান থেকে ময়লা ও ছাই সংগ্রহকারীদের নিশ্চিত লাভ হয়ে থাকে। কিন্তু রাস্তা থেকে ময়লা আবর্জনা সংগ্রহকারীদের লাভের বিষয়টি একেবারেই অনিশ্চিত। তাঁদের কাজটি অত্যন্ত পরিশ্রমের ও ভাগ্যনির্ভর।'

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়