নোট গুনতে পারেননি বর, বিয়েই বাতিল কনের!

প্রকাশিত: জানুয়ারী ২৩, ২০২৩, ০১:৫৭ দুপুর
আপডেট: জানুয়ারী ২৩, ২০২৩, ০৪:৫৮ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নোট গুনতে পারেননি হবু বর। শুধুমাত্র এই কারণেই বিয়ে বাতিল করে দিলেন কনে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফারুখাবাদ জেলায়। বিয়ে বাতিলের পর শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে তুমুল বাতবিতণ্ডা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। তারা দু’পক্ষের মধ্যে সমস্যাটি মিটমাট করার চেষ্টা করে। কিন্তু, কোনওভাবে কনে বিয়ে করতে রাজি হননি। ফলে বাধ্য হয়েই খালি হাতে ফিরে যেতে হয় বরকে।

জানা গেছে, পুরোহিতের সন্দেহ ছিল বর মানসিক ভারসাম্যহীন। সেই সন্দেহের কথা তিনি কনের পরিবারকে জানান। এরপর বর আদৌও মানসিক ভারসাম্যহীন কিনা তা জানতে বরকে পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন কনের পরিবার। এ জন্য তারা বরকে ১০ রুপির ৩০টি নোট গুনতে দেন। কিন্তু, বর নোট গুনতে ব্যর্থ হওয়ায় হতবাক হয়ে যান কনের পরিবার। এরপরে বিয়ের মঞ্চ থেকে উঠে পড়েন কনে। তিনি আর বিয়ে করতে রাজি হননি।

কনের ভাই মোহিত জানান, একজন নিকটাত্মীয় বর ঠিক করেছিলেন। ওই আত্মীয়র ওপর ভরসা থাকায় তার বিয়ের আগে বরকেও দেখেননি। তবে বিয়ের অনুষ্ঠানে পুরোহিত বরের আচরণ দেখে সন্দেহ করেন এবং আমাদের বিষয়টি জানান। সেই কারণে বর স্বাভাবিক কি না তা জানার জন্য আমরা তাকে একটি সহজ পরীক্ষা করেছিলাম। আমি তাকে মোট ৩০টি ১০ রুপির নোট গুনতে বলেছিলাম। কিন্তু, উনি গুনতে পারেননি তাই আমার বোন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে।

এদিকে, বিয়ে বন্ধের পর বর-কনের পরিবারের মধ্যে তুমুল বাকবিতণ্ডা হয়। কিন্তু, কোনওভাবেই কনে এবং তার পরিবারকে বিয়েতে রাজি করাতে পারেনি বরের পরিবার। শেষমেষ তাদের খালি হাতেই ফিরতে হয়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়