শিশু দেরিতে হাঁটতে শিখলে ...

প্রকাশিত: মে ০৮, ২০২২, ০৩:২৯ দুপুর
আপডেট: মে ০৮, ২০২২, ০৩:২৯ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

লাইফস্টাইল ডেস্ক:  প্রত্যেক মা-বাবার নিকটই তার সন্তান সব থেকে প্রিয়। তাইতো সন্তান জন্মের পর থেকেই তার প্রতি বাবা-মার থাকে বাড়তি যত্ন। ছোট্ট শিশুটির ছোটখাটো সব কাজই বাবা-মাকে অধিক আনন্দ দেয়। এমনকি শিশুর প্রথম হেঁটে বেড়ানোর দৃশ্যও প্রত্যেক মা-বাবাকে আনন্দের জোয়ারে ভাসায়। 

এমন ছবি মধুর স্মৃতি হয়ে জমা হয় জীবনের অ্যালবামে। প্রথম যখন হাঁটতে শেখে, টলমল পায়ে হাঁটতে গিয়ে শিশু কখনোবা মুখ থুবড়ে পড়ে যায়। তাই দেখে মা-বাবা বিচলিত হন। কিন্তু এমনটা হতেই পারে। এরকম একটু-আধটু না পড়ে কেউই হাঁটতে শেখে না। 

শিশু যদি হাঁটার বয়স ছাড়িয়ে যাওয়ার পরেও হাঁটতে না শেখে তবে সেক্ষেত্রে মা-বাবার উদ্বিগ্ন হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। শিশু কেন হাঁটতে দেরি করছে বা হাঁটতে শিখছে না সেই চিন্তায় পড়ে তারা বিশেষজ্ঞের পরামর্শও নেন অনেক সময়। তবে এক্ষেত্রে কিছু টিপস মেনে চললেও মিলতে পারে উপকার। জেনে নিন কী করলে আপনার শিশু দ্রুত হাঁটতে শিখবে-

ওয়াকার কিনে দেবেন না:  শিশুকে ওয়াকার কিনে দিয়ে মা-বাবা যেন নিশ্চিন্ত হন। কিন্তু এই অভ্যাস হতে পারে শিশুর ক্ষতির কারণ। সেজন্য বিশেষজ্ঞরা শিশুকে ওয়াকার কিনে দেওয়া থেকে বিরত থাকতে বলেন। কারণ একবার ওয়াকার ব্যবহার করে হাঁটতে শিখলে শিশু পরবর্তীতে ওয়াকার ছাড়া হাঁটতে চাইবে না। তাই শিশুকে স্বাভাবিক উপায়েই হাঁটার সুযোগ দিন। 

কার্পেট বিছিয়ে দিন: শিশুর হাঁটার বয়স হয়ে এলে ঘরের মেঝেতে কার্পেট বিছিয়ে দিন। এতে শিশু হাঁটতে গিয়ে পড়ে গেলেও ব্যথা পাবে না। তবে খেয়াল রাখবেন, কার্পেট যেন খুব বেশি ভারী না হয়। তাহলে শিশু হাঁটতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে যেতে পারে। 

তেল মালিশ করুন: শিশুর শরীরে দিনে দুইবার ভালো করে তেল মালিশ করুন। এতে শিশুর পেশি মজবুত হবে। যে কারণে হাঁটতে শিখবে দ্রুতই। শিশু হাঁটতে শুরু করলে তাকে পুরোপুরি ধরে রাখবেন না। শুধু আপনার কড়ে আঙুল তাকে ধরতে দিন। এতে সে নিজের পায়ে নির্ভর করে হাঁটতে শিখবে দ্রুত। 

হাঁটতে উৎসাহিত করুন: শিশুকে হাঁটতে উৎসাহিত করুন। প্রয়োজনে ঘরের কোণগুলোতে তার পছন্দের খেলনাগুলো রেখে দিন। এরপর তাকে বলুন সেই খেলনা নিয়ে আসতে। এভাবে সে ধীরে ধীরে হাঁটতে শিখে যাবে। সব শিশু একই বয়সে হাঁটতে শেখে না। কেউ আগে এবং কেউ একটু দেরিতে শিখতে পারে। তাই দুই-চার মাস দেরি হলে উদ্বিগ্ন হবেন না। তবে বেশি দেরি করলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়