প্রাকৃতিক উপায়ে দুশ্চিন্তা কমান

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২, ০৫:০০ বিকাল
আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২, ০৫:০০ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

শরীরের থেকেও বেশি জটিল মন। তা অন্দরে কখন হতাশা আর দুশ্চিন্তা উড়ে এসে জুড়ে বসে তা কেউ বলতে পারে না। বিশেষ করে আধুনিক এই ব্যস্ত জীবনে। সাফল্যের পেছনে ছুটতে ছুটতে হতাশা কিংবা দুশ্চিন্তা গ্রাস করতেই পারে।

অবশ্য সমস্যা যখন রয়েছে তার সমাধানও অবশ্য থাকবে। তবে সবসময় ডাক্তারের কাছে গিয়ে ওষুধ খাবার প্রয়োজন নেই। কিছু বিষয় ঘরোয়া টোটকা বা প্রাকৃতিক উপায়েও কমিয়ে  ফেলা সম্ভব। দুশ্চিন্তা বা হতাশার ক্ষেত্রে এমনই কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। যেমন-

ক্যামোমাইল ফুলের চা: ২০১৬ সালে ফাইটোমেডিসিন নামের একটি জার্নাল প্রকাশ করা হয়। সেখানেই মন শান্ত রাখার জন্য  ক্যামোমাইল ফুলের খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়ার ঠিক কি ঠিক নয় তা নিয়ে আলোচনা করা হয়। চায়ের মাধ্যমেই এই ফুলের স্বাদ নেয়া যেতে পারে। তবে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও থাকতে পারে। তাই ডাক্তারদের পরামর্শ নিয়েই এটি খাওয়া যেতে পারে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

ল্যাভেন্ডারের গন্ধ : ল্যাভেন্ডারের গন্ধ মন শান্ত করে। এমনটাই বলেন অনেকে। শোয়ার সময় একটু বালিশে দুই ফোঁটা ল্যাভেন্ডালের এসেন্স লাগিয়ে দিতে পারেন। অথবা গোসলের সময় জলে ল্যাভেন্ডারের এসেন্স মিশিয়ে নিতে পারেন। এতে আরাম মিলবে। 

শরীরচর্চা ও যোগাভ্যাস : এই দুই উপায়ে যেমন শরীর ফিট থাকে তেমনই এতে মন ভালো থাকে। পরিশ্রমের মাধ্যমে অনেক হতাশা-দুশ্চিন্তা বিষয় মন থেকে ঝেড়ে ফেলা সম্ভব হয়। আবার যোগাভ্যাসের মাধ্যমেও একাগ্রতা বাড়ে। ফলে যেকোনো বিষয়ে ভেবে সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ হয়।

ক্যাফেন জাতীয় খাবার ত্যাগ: ঘুম ভাঙানোর জন্য কিংবা কাজের ফাঁকে কফির কাপে চুমুক দেওয়ার অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। কিন্তু শরীরে ক্যাফেনের পরিমাণ বেশি হলে ঘুম কমে যায়। এতে মনও অশান্ত হয়ে ওঠে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়